fbpx
রোজা

রোযা রাখার ক্ষেত্রে বাচ্চাদের সাথে মিথ্যা বলা যাবে?

প্রশ্ন: অনেক মায়েরা ছোট ছেলেমেয়ে-যারা রোজা রাখতে ইচ্ছুক-তাদের কে বলেন: “একবার দুপুরে খাবার খেয়ে নিবে এরপর আবার সন্ধ্যায় ইফতারি করবে তাহলে তোমার দুটি রোজা হয়ে যাবে।” এসব কথা বলে কি বাচ্চাদের দ্বীনের ব্যাপারে মিথ্যা বা ভুল ধারণা দেয়া হচ্ছে না?

উত্তর: এভাবে বলা ঠিক নয়। কারণ প্রথমত: এটি একটি মিথ্যা কথা। ইসলামে বাচ্চাদের সাথেও সাথেও মিথ্যা বলা হারাম।
২য়ত: দ্বীন সম্পর্কে ভুল শিক্ষা দেয়া।

আমাদের আদর্শ সাহাবায়ে কেরাম কিভাবে ছোট বাচ্চাদেরকে রোযা রাখতে অভ্যস্ত করতেন তার উদাহরণ দেখা যেতে পারে নিম্নোক্ত হাদিস থেকে:
রুবায়’ই বিনতু মু’আব্‌বিয ইবনু ‘আফরা (রাঃ) থেকে বর্ণিতঃ

‏ فَكُنَّا بَعْدَ ذَلِكَ نَصُومُهُ وَنُصَوِّمُ صِبْيَانَنَا الصِّغَارَ مِنْهُمْ إِنْ شَاءَ اللَّهُ وَنَذْهَبُ إِلَى الْمَسْجِدِ فَنَجْعَلُ لَهُمُ اللُّعْبَةَ مِنَ الْعِهْنِ فَإِذَا بَكَى أَحَدُهُمْ عَلَى الطَّعَامِ أَعْطَيْنَاهَا إِيَّاهُ عِنْدَ الإِفْطَارِ

“এরপর আমরা এ দিন সাওম পালন করতাম এবং আমাদের ছোট ছোট সন্তানদেরকেও আল্লাহ চাহে তো সওম পালনে অভ্যস্ত করে তুলতাম। আমরা তাদেরকে মাসজিদে নিয়ে যেতাম এবং তাদের জন্য পশমের খেলনা বানিয়ে দিতাম। যখন তারা খাওয়ার জন্য কাঁদত, তখন আমরা তাদেরকে সে খেলনা প্রদান করতাম। এমনি করে ইফতারের সময় হয়ে যেত।”

(সহীহ মুসলিম, কিতাবুস সওম, হ/২৫৫৮)
আল্লাহু আলাম।
▬▬▬▬💠💠💠▬▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
জুবাইল দাওয়াহ, সৌদি আরব

➥ লিংকটি কপি অথবা প্রিন্ট করে শেয়ার করুন:
পুরোটা দেখুন

হাবিব বিন তোফাজ্জল

❝আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি আল্লাহ ছাড়া কোনাে সত্য ইলাহ নেই , এবং মুহাম্মাদ সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তার বান্দা ও রাসূল।❞ আমি একজন তালিবুল ইলম ও ফ্রিল্যান্সার। আমি নিজেকে ভুলের উর্ধে মনে করি না এবং আমিই হ্বক বাকি সবাই বাতিল তেমনটাও মনে করিনা। অতএব, ভুলত্রুটি হলে নাসীহা প্রদানের জন্যে অনুরোধ রইল। ― আমাদের পূর্বের সালাফেরা যেসকল বিষয়ে বাড়াবাড়ি ও ছাড়াছাড়ি করেছেন সেসকল বিষয়ে আমি তাদের অনুসরণকারী।

এই বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য লিখা

Back to top button