আক্বীদাহ

প্রশ্ন: যখন তোমাকে জিজ্ঞেস করা হয়, আল্লাহ তাআলার বাণী: أَلَآ إِنَّ أَوۡلِيَآءَ ٱللَّهِ لَا خَوۡفٌ عَلَيۡهِمۡ وَلَا هُمۡ يَحۡزَنُونَ “শুনে রেখ, নিশ্চয় আল্লাহর বন্ধুদের কোন ভয় নেই এবং তারা চিন্তিতও হবে না” এটি কি অলীদের আহ্বান করাকে বৈধতা দেয়?

 

উত্তর: বল, আয়াতটি তাদেরকে ডাকা অথবা তাদের কাছে ফরিয়াদ ও আশ্রয় প্রার্থনাকে বৈধ করে না; বরং এতে রয়েছে তাদের স্তরের বর্ণনা এবং তাদের ওপর দুনিয়া ও আখিরাতে ভয় না হওয়ার ঘোষণা। পরকালে তারা চিন্তিতও হবে না। এতে সু সংবাদ লাভের জন্য আল্লাহর তাওহীদ ও তাঁর রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের আনুগত্য করার মাধ্যমে বেলায়েতের গুণাবলী অর্জন করার আহ্বান করা হয়েছে। তিনি বলেন,

 أَلَآ إِنَّ أَوۡلِيَآءَ ٱللَّهِ لَا خَوۡفٌ عَلَيۡهِمۡ وَلَا هُمۡ يَحۡزَنُونَ

“তাদের কোনো ভয় নেই এবং তারা পেরশানও হবে না”। আর গায়রুল্লাহকে ডাকা শির্ক। যেমন পূর্বে তার আলোচনা অতিবাহিত হয়েছে।

 

সূত্র: ইসলামহাউজ.কম।

➥ লিংকটি কপি অথবা প্রিন্ট করে শেয়ার করুন:
পুরোটা দেখুন

হাবিব বিন তোফাজ্জল

❝আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি আল্লাহ ছাড়া কোনাে সত্য ইলাহ নেই , এবং মুহাম্মাদ সাল্লালাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তার বান্দা ও রাসূল।❞ আমি একজন তালিবুল ইলম ও ফ্রিল্যান্সার। আমি নিজেকে ভুলের উর্ধে মনে করি না এবং আমিই হ্বক বাকি সবাই বাতিল তেমনটাও মনে করিনা। অতএব, ভুলত্রুটি হলে নাসীহা প্রদানের জন্যে অনুরোধ রইল। ― আমাদের পূর্বের সালাফেরা যেসকল বিষয়ে বাড়াবাড়ি ও ছাড়াছাড়ি করেছেন সেসকল বিষয়ে আমি তাদের অনুসরণকারী।

এই বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য লিখা

Back to top button