দু'আ, যিকির ও ঝাড়ফুঁক

প্রশ্ন : করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে কুনুতে নাযেলা পাঠ করা যাবে কি?

উত্তর : যেহেতু বিপদ-আপদ থেকে আশ্রয় চেয়ে কুনূতে নাযেলা পাঠ করা হয়, সেহেতু মহামারীর মত বিপদ থেকে রক্ষা পেতেও তা পাঠ করা যায় (হাশিয়াতু ইবনে আবেদীন ২/১১; মিরআ‘তুল মাফাতীহ ৪/৩০৩)

ইমাম নববী (রহঃ) বলেন, বিশুদ্ধ ও প্রসিদ্ধ বক্তব্য হ’ল, মুসলমানদের উপর
শত্রু উপস্থিত হ’লে এবং দুর্ভিক্ষ, মহামারী, অনাবৃষ্টি, দুনিয়াবী ক্ষতি বা
অনুরূপ যেকোন বিপদাপদের সময় পাঁচ ওয়াক্ত ছালাতে কুনূতে নাযেলা পাঠ করা যাবে
(শরহ নববী ৫/১৭৬; ‘আওনুল মা‘বূদ ৪/২২২)

ইবনু তায়মিয়াহ (রহঃ) বলেন, ‘যেকোন বিপদে কুনূতে নাযেলা পাঠ করা সুন্নাত, যা মুহাদ্দিছ
ফক্বীহগণসহ খোলাফায়ে রাশেদীনের আমল দ্বারা প্রমাণিত (মাজমূ‘উল ফাতাওয়া ২৩/১০৯-১১০)

তবে একদল বিদ্বানের মতে, মহামারী থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করে কুনূতে নাযেলা
পাঠ করার বিষয়ে স্পষ্ট কোন দলীল পাওয়া যায় না। অতএব কুনূতে নাযেলার
পরিবর্তে মহামারীতে বিপদমুক্তির জন্য পঠিতব্য সাধারণ যে কোন দো‘আ পাঠ উচিৎ (মারদাভী, আল-ইনছাফ, ২/১৭৫; মুহাম্মাদ ইবনু মুফলিহ, কিতাবুল ফুরূ‘ ২/৩৬৭)

সূত্র: মাসিক আত-তাহরীক।

➥ লিংকটি কপি অথবা প্রিন্ট করে শেয়ার করুন:
পুরোটা দেখুন

Mahmud Ibn Shahid Ullah

"যে আল্লাহর দিকে দাওয়াত দেয়, সৎকর্ম করে এবং বলে, আমি একজন মুসলিম, তার কথা অপেক্ষা উত্তম কথা আর কার?" আমি একজন তালিবুল ইলম। আমি নিজেকে ভুলের উর্ধ্বে মনে করি না এবং আমিই হক্ব বাকি সবাই বাতিল এমনও ভাবিনা। অতএব, আমার দ্বারা ভুলত্রুটি হলে নাসীহা প্রদানের জন্যে অনুরোধ রইল। ❛❛যখন দেখবেন বাত্বিল আপনার উপর সন্তুষ্ট, তখন বুঝে নিবেন আপনি ক্রমের হক্ব থেকে বক্রপথে ধবিত হচ্ছেন।❞

এই বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য লিখা

Back to top button