অন্যান্য

পরীক্ষার জন্য আল-কুরআন মুখস্থ করা

প্রশ্ন: এমন ব্যক্তির বিধান কী হবে, যে বেশি বেশি কুরআন পাঠ করে, কিন্তু তার স্মরণ শক্তির দুর্বলতার কারণে তা মুখস্থ করতে সমর্থ হয় না? আর ঐ ব্যক্তির বিধান কী হবে, যে আল-কুরআন মুখস্থ করে এবং তা ভুলে যায় ঐ ব্যক্তির মত, যে তা পরীক্ষার জন্য মুখস্থ করে, এতে কি তার গুনাহ হবে?

উত্তর: আলহামদু লিল্লাহ।

যে ব্যক্তি বেশি বেশি কুরআন পাঠ করে, কিন্তু তার স্মৃতি শক্তির দুর্বলতার কারণে সে তা মুখস্থ করতে পারে না, তবে সে ব্যক্তিকে তার পাঠ করার উপর সাওয়াব দেয়া হবে এবং তার মুখস্থ না হওয়ার ক্ষেত্রে তার ওযর গ্রহণ করা হবে; কেননা আল্লাহ তা‘আলা বলেন:

﴿ فَٱتَّقُواْ ٱللَّهَ مَا ٱسۡتَطَعۡتُمۡ ﴾ [التغابن: ١٦]

“সুতরাং তোমরা সাধ্যমত আল্লাহর তাকওয়া অবলম্বন কর।” – (সূরা আত-তাগাবুন: ১৬); আর যে ব্যক্তি উদাহরণস্বরূপ পরীক্ষার জন্য আল-কুরআন মুখস্থ করে, অতঃপর তা ভুলে যায়, তবে সে গুনাহগার হবে এবং সে অনেক কল্যাণ থেকে বঞ্চিত হবে। আর তাওফীক দানের মালিক আল্লাহ;

و صلى الله على نبينا محمد و آله و صحبه و سلم .

(আল্লাহরহমত ও শান্তি বর্ষণ করুন আমাদের নবী মুহাম্মদ (ﷺ)-এর উপর এবং তাঁর পরিবার-পরিজন ও সাহাবীদের উপর)।

সূত্রঃ গবেষণাপত্র ও ফতোয়া বিষয়ক স্থায়ী পরিষদ; স্থায়ী পরিষদের ফতোয়া (فتاوى اللجنة الدائمة): ৪ / ৬৩, ফতোয়া নং- ৭৭৩১

➥ লিংকটি কপি অথবা প্রিন্ট করে শেয়ার করুন:
পুরোটা দেখুন

Mahmud Ibn Shahid Ullah

"যে আল্লাহর দিকে দাওয়াত দেয়, সৎকর্ম করে এবং বলে, আমি একজন মুসলিম, তার কথা অপেক্ষা উত্তম কথা আর কার?" আমি একজন তালিবুল ইলম। আমি নিজেকে ভুলের উর্ধ্বে মনে করি না এবং আমিই হক্ব বাকি সবাই বাতিল এমনও ভাবিনা। অতএব, আমার দ্বারা ভুলত্রুটি হলে নাসীহা প্রদানের জন্যে অনুরোধ রইল। ❛❛যখন দেখবেন বাত্বিল আপনার উপর সন্তুষ্ট, তখন বুঝে নিবেন আপনি ক্রমের হক্ব থেকে বক্রপথে ধবিত হচ্ছেন।❞

এই বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য লিখা

Back to top button