কুরবানী

প্রশ্ন : পশুর শরীরে টিউমার থাকলে কিংবা অর্ধেক শিং ভাঙ্গা থাকলে তা দ্বারা কুরবানী দেওয়া যাবে কী?

 

উত্তর : কুরবানীর জন্য কেমন পশু হ’তে বিরত থাকতে হবে, এমন প্রশ্নের উত্তরে রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘চার প্রকার পশু থেকে : স্পষ্ট খোঁড়া, স্পষ্ট কানা, স্পষ্ট রোগী ও জীর্ণশীর্ণ (আহমাদ হা/১৮৬৯৭, ১০৪৮, ১০৬১; তিরমিযী হা/১৪৯৭; ইবনু মাজাহ হা/৩১৪৪ প্রভৃতি; মিশকাত হা/১৪৬৫)

সুতরাং সাধারণ ত্রুটি যেমন অর্ধেক কান কাটা বা ছিদ্র করা, অর্ধেক শিং ভাঙ্গা বা কিছু দাঁত পড়ে যাওয়া পশু দিয়ে কুরবানী করা যায় (আহমাদ হা/১৮৫৩৩; ইবনু মাজাহ হা/৩১৪৩-৪৪; নাসাঈ হা/৪৩৬৯)

এছাড়া জন্মগতভাবে বা পরবর্তীতে লেজ কাটা অথবা জন্মগতভাবে শিং বা কান না থাকা পশু কুরবানী করা জায়েয (আশ-শারহুল মুমতে‘ ৭/৪৩৫, ইবনু কুদামা, আল-মুগনী ১৩/৩৭২)। তবে নিখুঁত হওয়াই উত্তম (দ্র. ‘মাসায়েলে কুরবানী ও আক্বীক্বা’ বই, ৭ম সংস্করণ, ১৭-১৮ পৃ.)

আর টিউমারকে হাদীছে ত্রুটিযুক্ত পশুর তালিকায় বর্ণনা করা হয়নি। তবে পশুর যে সমস্ত রোগ মানব দেহে সংক্রমিত হয়, ঐসব রোগে আক্রান্ত পশু কুরবানী করা হ’তে বিরত থাকা কর্তব্য। রাসূল (ছাঃ) বলেন, ‘তোমরা ক্ষতি করোনা এবং ক্ষতিগ্রস্ত হয়োনা’ (ইবনু মাজাহ হা/২৩৪১; ছহীহাহ হা/২৫০)

 

সূত্র: মাসিক আত-তাহরীক।

➥ লিংকটি কপি অথবা প্রিন্ট করে শেয়ার করুন:
পুরোটা দেখুন

Mahmud Ibn Shahid Ullah

"যে আল্লাহর দিকে দাওয়াত দেয়, সৎকর্ম করে এবং বলে, আমি একজন মুসলিম, তার কথা অপেক্ষা উত্তম কথা আর কার?" আমি একজন তালিবুল ইলম। আমি নিজেকে ভুলের উর্ধ্বে মনে করি না এবং আমিই হক্ব বাকি সবাই বাতিল এমনও ভাবিনা। অতএব, আমার দ্বারা ভুলত্রুটি হলে নাসীহা প্রদানের জন্যে অনুরোধ রইল। ❛❛যখন দেখবেন বাত্বিল আপনার উপর সন্তুষ্ট, তখন বুঝে নিবেন আপনি ক্রমের হক্ব থেকে বক্রপথে ধবিত হচ্ছেন।❞

এই বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য লিখা

Back to top button