সালাত / নামায

প্রশ্ন : তিন রাক‘আত বিতর ছালাতের সঠিক নিয়ম জানতে চাই?

উত্তর : মাঝখানে কোন বৈঠক না করেই একটানা তিন রাক‘আত পড়তে হবে (মুস্তাদরাক হাকেম, হা/১১৪০; বায়হাক্বী, হা/৪৮০৩, ৩য় খণ্ড, পৃ. ৪১; সনদ ছহীহ, তা’সীসুল আহকাম ২/২৬২ পৃ.)।

আল্লাহর রাসূল (ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) তিন রাক‘আত বিতর পড়তেন কিন্তু তিনি শেষের রাক‘আতে ছাড়া বসতেন না এবং শেষ রাক‘আত ব্যতীত তাশাহহুদ পড়তেন না (মুছান্নাফ আব্দুর রাযযাক, হা/৪৬৬৯, ৩য় খণ্ড, পৃ. ২৭; মা‘রেফাতুস সুনান ওয়াল আছার, হা/১৪৭১, ৪/২৪০; বিস্তারিত দ্র. ইরওয়াউল গালীল হা/৪১৮-এর আলোচনা; মুস্তাদরাক হাকেম, হা/১১৪২)।

উবাই ইবনু কা‘ব (রাযিয়াল্লাহু আনহু) হতে বর্ণিত, রাসূল (ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) তিন রাক‘আত বিতর পড়তেন। প্রথম রাক‘আতে ‘সাব্বিহিসমা রাব্বিকাল আ‘লা’ দ্বিতীয় রাক‘আতে ‘কুল ইয়া আইয়ুহাল কাফেরূন’ এবং তৃতীয় রাক‘আতে ‘কুল হুওয়াল্লা-হুল আহাদ’ পড়তেন এবং তিনি রুকূর পূর্বে কুনূত পড়তেন। অতঃপর যখন তিনি শেষ করতেন তখন শেষে তিনবার বলতেন ‘সুবহা-নাল মালিকিল কুদ্দূস’। শেষবার টেনে বলতেন (নাসাঈ হা/১৬৯৯, ১/১৯১ পৃ., সনদ ছহীহ)।

উল্লেখ্য, তিন রাক‘আত বিতর পড়ার সময় দ্বিতীয় রাক‘আতে বৈঠক করার কোন ছহীহ দলীল নেই।

 

সূত্র: মাসিক আল-ইখলাছ।

➥ লিংকটি কপি অথবা প্রিন্ট করে শেয়ার করুন:
পুরোটা দেখুন

Mahmud Ibn Shahid Ullah

"যে আল্লাহর দিকে দাওয়াত দেয়, সৎকর্ম করে এবং বলে, আমি একজন মুসলিম, তার কথা অপেক্ষা উত্তম কথা আর কার?" আমি একজন তালিবুল ইলম। আমি নিজেকে ভুলের উর্ধ্বে মনে করি না এবং আমিই হক্ব বাকি সবাই বাতিল এমনও ভাবিনা। অতএব, আমার দ্বারা ভুলত্রুটি হলে নাসীহা প্রদানের জন্যে অনুরোধ রইল। ❛❛যখন দেখবেন বাত্বিল আপনার উপর সন্তুষ্ট, তখন বুঝে নিবেন আপনি ক্রমের হক্ব থেকে বক্রপথে ধবিত হচ্ছেন।❞

এই বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য লিখা

Back to top button