সালাত / নামায

প্রশ্ন: সমাজে এমন কিছু ব্যক্তি আছে, যারা ছালাত আদায় করে না, শুধু ঈদের ছালাত আদায় করে। কিছু ব্যক্তি আছে, তারা শুধু জুমু‘আর ছালাত আদায় করে। আবার কিছু ব্যক্তি আছে, যারা দৈনিক ২, ৩, ৪ ওয়াক্ত ছালাত আদায় করে। এই তিন ব্যক্তি সম্পর্কে হাদীছ ও সালাফে ছালেহীন কী ফৎওয়া দিয়েছেন?

উত্তর : যারা দুই ঈদ, জুমু‘আ কিংবা মাঝে মাঝে ছালাত আদায় করে তারা মূলত মানুষকে দেখানোর জন্য ছালাত পড়ে থাকে। যা উদাসিনতার শামিল ও শিরকে আছগারের অন্তর্ভুক্ত (সূরা আল-মাঊন : ৫-৬; মুসনাদে আহমাদ, হা/২৩৬৮০; সনদ ছহীহ, সিলসিলা ছহীহাহ, হা/৯৫১)। অথচ মুসলিমের আবশ্যিক দায়িত্ব হল কেবল মহান আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য ফরয ইবাদতগুলো নিয়মিত আদায় করা এবং তার উপর টিকে থাকা (সূরা আল-বাইয়েনাহ : ৫; ছহীহ মুসলিম, হা/৭৮২; আবূ দাঊদ, হা/১৩৬৮)। তবে যে ব্যক্তি ছালাত আদায় করবে না, সে নিঃসন্দেহে কুফুরী করবে। অলসতা ও অবহেলায় কোন মুসলিম যদি ছালাত আদায় না করে, তাহলে উক্ত অপরাধের কারণে সে জাহান্নামের তলদেশে নিক্ষিপ্ত হবে (সূরা মারইয়াম : ৫৯)। শাস্তি ভোগ করার পর আল্লাহর দয়ায় কালেমা ত্বাইয়েবার বরকতে মুক্তি পাবে এবং জান্নাতে প্রবেশ করবে (ইবনু মাজাহ হা/৬০, পৃ. ৭, সনদ ছহীহ)। কিন্তু কেউ ইচ্ছাকৃতভাবে ছালাত ছেড়ে দিলে এবং অস্বীকার করলে সে ইসলাম থেকে বের হয়ে যাবে এবং চিরস্থায়ী জাহান্নামী হবে (শায়খ আলবানী, হুকমু তারিকিছ ছালাহ, পৃৃ. ৬)।

 

সূত্র: মাসিক আল-ইখলাছ।

➥ লিংকটি কপি অথবা প্রিন্ট করে শেয়ার করুন:
পুরোটা দেখুন

এই বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য লিখা

Back to top button