রোজা / সিয়াম

Islamicaskbd.com থেকে জেনে নিন সিয়াম সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ন মাসলা মাসায়েল, ইসলামিক জিজ্ঞাসা ও জবাব, ইসলামিক প্রশ্নোত্তর।

প্রশ্ন : কারু সুস্থতা কামনা বা বিপদমুক্তির জন্য ছিয়াম রাখা যাবে কি?

  উত্তর : এ ব্যাপারে রাসূল (ছাঃ) বা ছাহাবায়ে কেরাম থেকে আমল পাওয়া যায় না। সুতরাং এ থেকে বিরত থাকাই…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : আইয়ামে বীযের নফল ছিয়াম কি মাসের যেকোন তিনদিন রাখলে হবে, না কি ১৩, ১৪ ও ১৫ তারিখেই রাখতে হবে? তারিখ যদি নির্দিষ্ট হয় সেক্ষেত্রে যিলহজ্জ মাসের ১৩ তারিখে তথা নিষিদ্ধ দিনটিতে করণীয় কি?

  উত্তর : প্রতি আরবী মাসের মধ্যবর্তী ১৩, ১৪ ও ১৫ তারিখ, আইয়ামে বীয-এর ৩ দিন ছিয়াম পালন করা মুস্তাহাব…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : অবহেলা বা মাযহাবী কারণে ছালাত বা ছিয়ামের কোন সুন্নাত পরিত্যাগকারী গোনাহগার হবে কি?

উত্তর :প্রতিটি সুন্নাত পালনে নেকী রয়েছে। ছোট হোক বা বড় হোক সুন্নাত পালনের মধ্যে রয়েছে দুনিয়াবী কল্যাণ ও পরকালীন মুক্তি।…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : জনৈকা গর্ভবতী মহিলাকে ডাক্তার পরামর্শ দিয়েছেন যে, রামাযানের ছিয়াম পালন করা যাবে না। কারণ ক্ষতি হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। এক্ষেত্রে করণীয় কী?

উত্তর : গর্ভবতী ও দুধ পানকারীণির যদি ছিয়াম রাখার কারণে তার ও বাচ্চার ক্ষতি হয়, তাহলে ছিয়াম ছেড়ে দিবে। তবে…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : রামাযান মাসে বিমান বন্দরে ইফতার করে বিমানে উঠার পর সূর্য দেখা গেছে। এমতাবস্থায় করণীয় কী?

উত্তর : তার ছিয়াম পূর্ণ হয়ে যাবে। তাকে পুনরায় ছিয়াম ক্বাযা করতে হবে না। কেননা তার বিধান সেই দেশের সাথেই…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : রামাযানের ছিয়াম অবস্থায় ইনজেকশন নিলে কি ছিয়াম নষ্ট হয়ে যাবে?

উত্তর : যে সব ইনজেকশন খাদ্য হিসাবে ব্যবহৃত হয় না, সেগুলো রোগমুক্তির জন্য গ্রহণ করা যাবে। ইবনু আব্বাস (রাযিয়াল্লাহু আনহুমা)…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : জনৈক বক্তা বলেন, যে বান্দা রামাযানের ছিয়াম পালন করে তার সাথে প্রত্যেক দিন তাঁবুতে সুরক্ষিত হুরদের মধ্য হতে একজনকে বিবাহ দিয়ে দেন। প্রত্যেক স্ত্রীর সাথে ৭০টি দামী কাপড় থাকবে। প্রত্যেকটির রং হবে পৃথক পৃথক। তাকে ৭০ প্রকারের সুগন্ধিযুক্ত রং দেয়া হবে। এক রঙের সাথে অন্য রঙ মিলবে না। প্রত্যেকেই বসে থাকবে হীরার খাটে, যাতে মুক্তা দ্বারা বিন্যস্ত করা থাকবে ৭০টি বিছানা, যার আস্তর থাকবে রেশমের। ৭০টি বিছানার উপর থাকবে ৭০টি পালঙ্ক। প্রত্যের স্ত্রীর জন্য থাকবে ৭০ জন্য সেবিকা, যারা তার সেবা করবে। আর ৭০ জন সেবিকা থাকবে তার সাথে মুলাক্বাতের জন্য। আর প্রত্যেক সহচরের সাথে থাকবে অনেক সম্ভ্রান্ত সাথী। জান্নাতে স্বর্ণের পাত্র থাকবে তাতে বিভিন্ন রঙের খাবার থাকবে। প্রথম যে স্বাদ পাওয়া যাবে শেষেও সে স্বাদ পাওয়া যাবে। আর তার স্বামীকেও অনুরূপ লাল হীরার খাট দেয়া হবে, যার উপর দু’টি স্বর্ণের বালা থাকবে, যা বিন্যস্ত থাকবে লাল হীরা দ্বারা। এটা রামাযানের প্রত্যেক দিন ছিয়াম পালনকারীর জন্য, অন্য নেক আমলের জন্য নয় (ত্বাবারাণী, আল-মু‘জামুল কাবীর হা/৯৬৭)। উক্ত বর্ণনা কি ছহীহ?

উত্তর : উক্ত বর্ণনা সঠিক নয়। বর্ণনাটি মুনকার বা ছহীহ হাদীছের বিরোধী। এর সনদে ওয়ালীদ ইবনু ওয়ালীদ নামে পরিত্যক্ত রাবী…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : রামাযান মাসে প্রতিদিন মসজিদে মুছল্লীদের জন্য ইফতারের ব্যবস্থা করা যাবে কি?

উত্তর : সম্মিলিতভাবে মসজিদে ইফতার করা দোষণীয় নয়। বিশেষ করে মুসাফির ব্যক্তিদের সুবিধার্থে প্রত্যেক মসজিদেই ইফতারের ব্যবস্থা থাকা উচিত। তবে…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : ছিয়াম অবস্থায় সহবাস ব্যতীত স্ত্রীর সাথে মেলামেশা করা যাবে কি?

উত্তর : ছিয়াম অবস্থায় স্ত্রীর সাথে স্বাভাবিক উঠা-বসা বা মেলামেশা করাতে কোন বাধা নেই। তবে সর্বদা ছিয়ামের বিষয়টি খেয়াল রাখা…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : তারাবীহর ছালাতে কুরআন খতম করা যাবে কি?

উত্তর : তারতীলসহ ধীরস্থিরতার সাথে তেলাওয়াত করে তারাবীহর ছালাতে কুরআন খতম করা ভাল। নবী করীম (ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) হতে…

আরও পড়ুন ➲
Back to top button