fbpx

উত্তরাধিকার আইন

প্রশ্ন : জনৈক নারী এক ছেলে রেখে মৃত্যুবরণ করেন। কিছুদিন পর ছেলেও মারা যায়। বর্তমানে তার স্বামী ও এক ভাই জীবিত আছে। তাদের সম্পদ কিভাবে বণ্টিত হবে?

উত্তর : প্রথমতঃ সম্পদ স্বামী ও ছেলের মাঝে বণ্টিত হবে। অর্থাৎ স্বামী এক-চতুর্থাংশ পাবেন এবং ছেলে আছাবা হিসাবে পুরো সম্পদ…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : স্বামী স্ত্রীকে মোহরানা হিসাবে ৫ বিঘা জমি দান করে। কিন্তু পরবর্তীতে স্ত্রী নিঃসন্তান অবস্থায় মারা যায়। এখন স্ত্রীর রেখে যাওয়া সেই ৫ বিঘা জমি থেকে স্বামী মীরাছ হিসাবে কিছু পাবে কি? পেলে কতটুকু পাবে?

উত্তর : স্বামী স্ত্রীর সম্পত্তিতে অংশ পাবে। তাদের সন্তান না থাকায় স্বামী স্ত্রীর পরিত্যক্ত সম্পত্তির অর্ধেক পাবে। আল্লাহ বলেন, আর…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : আমার ছোট ভাই ২৪ বছর যাবত মানসিক বিকারগ্রস্ত এবং বিগত চার বছর ধরে নিখোঁজ। আমার আরো ভাই ও বোন বেঁচে আছে। এক্ষণে সম্পত্তি কিভাবে বণ্টিত হবে?

উত্তর : দীর্ঘ সময় ধরে নিখোঁজ ব্যক্তি নিহত হিসাবে পরিগণিত হবে। এক্ষেত্রে যদি বিচারক তার হারানোর ব্যাপারে নিশ্চিত ফায়ছালা দেন…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : জনৈক ব্যক্তি বলেন, মীরাছের ক্ষেত্রে পিতার সম্পত্তিতে ছেলেরা মেয়েদের দ্বিগুণ পেলেও মায়ের সম্পত্তিতে মেয়েরা ছেলেদের দ্বিগুণ বা সমান পাবে। উক্ত বক্তব্যের সত্যতা জানতে চাই।

উত্তর : উক্ত।বক্তব্য সঠিক নয়। পিতা হৌক বা মাতা হৌক তাদের সম্পত্তিতে ছেলেরা মেয়েদের দ্বিগুণ হারে পাবে। আল্লাহ বলেন, আল্লাহ…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : জনৈক ব্যক্তির চার ভাই ও দু’বোন আছে। তিন ভাই ও দু’বোন আগেই মারা গেছে। এক্ষণে এক ভাই জীবিত আছে যার কোন সন্তান নেই। সেও মারা গেল কিছুদিন আগে। জীবিত আছে তার স্ত্রী, এক ভাইয়ের ৮ ছেলে, ১ মেয়ে; অন্য ভাইয়ের চার ছেলে ও ছয় মেয়ে এবং আরেক ভাইয়ের তিন ছেলে ও চার মেয়ে। কে কতটুকু সম্পদ পাবে?

উত্তর : স্ত্রী ১/৪ অংশ পাবে। যেহেতু তার সন্তান বা পুত্রের সন্তান নেই। আর সহোদর ভাইয়ের পুত্ররা একমাত্র অবশিষ্টভোগী ‘আছাবাহ’…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : আমার মামা মারা গেছেন। তার কোন ছেলে-মেয়ে নেই। তার একজন স্ত্রী ও তিনজন বোন আছে। কে কতটুকু অংশ পাবে?

উত্তর : এক্ষেত্রে স্ত্রী এক-চতুর্থাংশ পাবে। আর বাকী সম্পত্তি বোনেরা আছহাবুল ফুরুয ও পরে আছাবা হিসাবে পুরো সম্পত্তি পেয়ে যাবে।…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : আমার ভাই-ভাতিজা পুরোপুরি কবরপূজারী মুশরিক। তাই তারা আমার সম্পত্তিতে অংশীদার হবে ভেবে আমি আমার তিন মেয়ের নামে সকল সম্পদ লিখে দিয়েছি। এটা জায়েয হয়েছে কি কবরপূজারীরা সম্পদের অংশীদার হবে কি?

উত্তর : কোন মুসলমান কবরপূজারী হ’লে সে নিঃসন্দেহে শিরককারী ও কবীরা গোনাহগার। কিন্তু প্রকাশ্যে কালেমা শাহাদতকে অস্বীকার করেনি বিধায় সে…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : আমার তিন মেয়ে, স্ত্রী ও ভাই আছে। আমি যদি এখন মারা যাই তাহ’লে কে কতটুকু অংশ পাবে?

উত্তর : এরূপ অবস্থায় তিন মেয়ে পাবে দুই-তৃতীয়াংশ ও স্ত্রী পাবেন এক-অষ্টমাংশ (নিসা ৪/১২)। এরপর বাকী অংশ ‘আছাবা’ হিসাবে ভাই…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : জনৈক ব্যক্তির প্রথমা স্ত্রী ‘খোলা’র মাধ্যমে পৃথক হয়ে ৪টি সন্তান সহ বর্তমানে অন্যত্র বিবাহিত জীবন যাপন করছে। ঐ সন্তানদের সাথে পিতার তেমন কোন সম্পর্ক নেই। অন্যদিকে পিতা পুনরায় বিবাহ করেছেন। কিন্তু সেই সংসারে তার কোন সন্তান নেই। এক্ষণে তিনি মারা গেলে তার সম্পদের মীরাছ বণ্টন হবে কিভাবে?

উত্তর : এক্ষেত্রে তার পূর্ব স্ত্রীর গর্ভজাত সন্তানেরা ‘ছেলেরা মেয়েদের দ্বিগুণ’ হারে পুরো সম্পত্তি পেয়ে যাবে এবং তার বর্তমান স্ত্রী…

আরও পড়ুন ➲

প্রশ্ন : আমার অবিবাহিত মামা ১ বিঘা জমি রেখে মারা গিয়েছেন। তার দাদা ও বোন জীবিত রয়েছে এবং আরেক বোন মারা গেছে। দাদার ৩ ছেলে ও ১ মেয়ে, জীবিত বোনের ১ ছেলে এবং মৃত বোনের ৪ ছেলে রয়েছে। এক্ষণে উক্ত জমি কিভাবে ভাগ হবে?

উত্তর : পুরো সম্পত্তির মালিক হবেন দাদা। আবুবকর (রাঃ) বলেন, দাদা পিতার ন্যায়। হযরত ওছমান, ইবনু আববাস, ইবনু যুবায়ের (রাঃ)…

আরও পড়ুন ➲
Back to top button