যাকাত

প্রশ্ন : কোন ব্যক্তিকে অর্থ ঋণ দেওয়ার পর একসময় দেখা গেল তিনি ঋণ পরিশোধে পুরোপুরি অক্ষম। এমতাবস্থায় নিজের যাকাত থেকে উক্ত অর্থ কেটে রাখা যাবে কি? এছাড়া কাউকে কোন অর্থ দান করার পর পরবর্তীতে তা বাধ্যগত অবস্থায় গৃহীত ব্যাংক সূদ থেকে প্রাপ্ত আয়ের সাথে সমন্বয় করা যাবে কি?

 

উত্তর : ঋণগ্রহীতাকে অবহিত না করে উক্ত টাকা যাকাত হিসাবে কেটে রাখা যাবে না। বরং প্রয়োজনে ঋণগ্রহীতাকে আরো সময় দিতে হবে অথবা হকদার হিসাবে তাকে যাকাতের সম্পদ থেকে দান করা যাবে। ঋণগ্রহীতা সেই অর্থ দিয়ে ঋণ পরিশোধ করবে। তাতে কোন দোষ নেই (নববী, আল-মাজমূ‘ ৬/২১০; বিন বায, মাজমূ‘ ফাতাওয়া ১৪/২৮০-৮১)

আর ব্যাংক থেকে প্রাপ্ত সূদ দ্বারা দানের অর্থ সমন্বয় করা অন্যায়। কারণ এটি পবিত্র সম্পদের সাথে অপবিত্র সম্পদ মিশ্রিত করার শামিল, যা সিদ্ধ নয় (বাক্বারাহ ২/২৬৭)

 

সূত্র: মাসিক আত-তাহরীক।

➥ লিংকটি কপি অথবা প্রিন্ট করে শেয়ার করুন:
পুরোটা দেখুন

Mahmud Ibn Shahid Ullah

"যে আল্লাহর দিকে দাওয়াত দেয়, সৎকর্ম করে এবং বলে, আমি একজন মুসলিম, তার কথা অপেক্ষা উত্তম কথা আর কার?" আমি একজন তালিবুল ইলম। আমি নিজেকে ভুলের উর্ধ্বে মনে করি না এবং আমিই হক্ব বাকি সবাই বাতিল এমনও ভাবিনা। অতএব, আমার দ্বারা ভুলত্রুটি হলে নাসীহা প্রদানের জন্যে অনুরোধ রইল। ❛❛যখন দেখবেন বাত্বিল আপনার উপর সন্তুষ্ট, তখন বুঝে নিবেন আপনি ক্রমের হক্ব থেকে বক্রপথে ধবিত হচ্ছেন।❞

এই বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য লিখা

Back to top button